ad720-90

হুয়াওয়ের পাশ থেকে সরে যাচ্ছে এআরএম!


মোবাইল চিপের নকশা নিয়েও বিপদে পড়তে যাচ্ছে হুয়াওয়ে। ছবি: বিবিসির সৌজন্যেযুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়ে এমনিতেই বেকায়দায় আছে চীনা টেক জায়ান্ট হুয়াওয়ে। প্রতিষ্ঠানটির অস্বস্তি আরও বাড়িয়ে দিয়েছে চিপ ডিজাইনার কোম্পানি এআরএম। যুক্তরাজ্যভিত্তিক কোম্পানিটি নিজেদের কর্মীদের জানিয়েছে, মার্কিন নিষেধাজ্ঞা মেনে হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করবে তারা। ফলে চিপের নকশা নিয়েও বিপদে পড়তে যাচ্ছে হুয়াওয়ে।

এ সংক্রান্ত একটি নথি সংবাদমাধ্যম বিবিসির হাতে পৌঁছেছে। বিবিসি বলছে, এআরএম তাদের কর্মীদের এ বিষয়ে জানিয়েছে। যদিও হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি এআরএম। আজ বুধবার এক বিবৃতিতে কোম্পানিটি জানায়, তাদের নকশায় যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়। তাই মার্কিন সরকারের সাম্প্রতিক সিদ্ধান্ত ও এ সংক্রান্ত সব বিধি-নিষেধ তারা মেনে চলবে। অবশ্য হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি প্রতিষ্ঠানটি।

বাজার বিশ্লেষণকারী প্রতিষ্ঠান সিসিএস ইনসাইটের কর্মকর্তা জিওফ ব্লেবার বিবিসিকে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সরকার যদি দীর্ঘ মেয়াদের জন্য এই নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখে তাহলে হুয়াওয়ের ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ‘অপূরণীয়’ ক্ষতি হবে। হুয়াওয়ের বেশির ভাগ চিপ এআরএমের প্রযুক্তি ব্যবহার করে নকশা করা হয়। নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলে নিজস্ব চিপ তৈরি করতে বেকায়দায় পড়বে হুয়াওয়ে।

জাপানি টেলিকম প্রতিষ্ঠান সফটব্যাংকের মালিকানাধীন হওয়ার আগ পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে বড় প্রযুক্তি বিষয়ক কোম্পানি বলে ধরা হতো এআরএম’কে। ১৯৯০ সালে প্রতিষ্ঠিত কোম্পানি এআরএমের সদর দপ্তর যুক্তরাজ্যের কেমব্রিজে। যুক্তরাষ্ট্রেও কোম্পানিটির ৮টি অফিস আছে।

এআরএমের এমন সিদ্ধান্তের পর এক বিবৃতিতে নিজেদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে হুয়াওয়ে। বিবৃতিতে কোম্পানিটি বলেছে, ‘আমরা আমাদের অংশীদারদের সঙ্গে বিদ্যমান সুসম্পর্কের কদর করি। কিন্তু আমরা এটাও বুঝতে পারছি, তাদের মধ্যে কেউ কেউ রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের কারণে বর্তমানে বেশ চাপের মুখে রয়েছে। আমরা আত্মবিশ্বাসী যে, খুব শিগগিরই এই পরিস্থিতির নিরসন হবে। বিশ্বজুড়ে আমাদের গ্রাহকদের কাছে বিশ্বমানের প্রযুক্তিসম্পন্ন পণ্য পৌঁছে দেওয়াই আমাদের প্রধান লক্ষ্য।’

এর আগে গত সোমবার যুক্তরাষ্ট্র সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী মার্কিন টেক জায়ান্ট গুগল ঘোষণা দেয়, এখন থেকে হুয়াওয়ের অ্যান্ড্রয়েড অপারেট সিস্টেমে কিছু সেবার আর কোনো আপডেট ভার্সন দেবে না তারা। এর ফলে নতুন হুয়াওয়ে স্মার্টফোনগুলোতে জিমেইল, ইউটিউব, গুগল ম্যাপসের মতো অ্যাপগুলো আর থাকবে না। তবে এরপর যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যমন্ত্রী উইলবার রস এক বিবৃতিতে জানান, হুয়াওয়ের ওপর নির্ভরশীল প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিকল্প ব্যবস্থা করতে সময় দেওয়ার জন্য এ নিষেধাজ্ঞা তিন মাসের জন্য শিথিল করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:

হুয়াওয়েতে নিষিদ্ধ ইউটিউব, গুগল ম্যাপস, জি-মেইল 
হুয়াওয়ের বিধিনিষেধ ৩ মাসের জন্য শিথিল  





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



istanbul escort

Escort Mersin

|

Eskişehir escort bayanları görüntülemek için tıklayın!

|

Grup Escort

|

adana escort numarasi

|

adana escort fiyatlari

|

adana escort rüya

|

Escort Mersin

|

Escort kızlar Eskişehir

|

Eskişehir türbanlı escort Merve

|

Mersin escort bayan

|

adana escort bayan facebook

|

adana suriyeli escort bayan

|

adana escort fiyatlari

|

Escort Mersin

|

Escort partnerler Eskişehir

|

Eskişehir Türbanlı Escort

|

Mersin anal escort bayan

|

adana anal escort

|

adana escort bayan

|

adana escort ucuz

|
escort99.com