ad720-90

লোকাল হোস্ট এ যেভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করবেন দেখুন।


আসসালামু আলাইকুম,
আশা করছি ভালো আছেন সকলেই, ইনশাল্লাহ আমিও অনেক ভালো আছি তাই আজ নিয়ে আসলাম আপনাদের জন্য দারুন একটা টিউটোরিয়াল।

আমরা জানি ওয়েবসাইট কী, বা ওয়েবসাইট কী কাজে ব্যবহার হয়ে থাকে। বর্তমান অনলাইন এ আউটসোর্সিং এর জন্য ওয়েবসাইট হলো দারুন প্লাটফর্ম, মনে করুন আপনার একটা ওয়েবসাইট আছে এবং বেশ ভালো মানের কিছু কনটেন্ট আপনি পাবলিশ করেছেন আর তারপর কিছু এড নেটওয়ার্ক এর কাছে অনুরোধ পাঠিয়ে তাদের এড ব্যবহার করে খুব সহজেই বেশ কিছু ইনকাম করে নেওয়া সম্ভব।

এখন কথা হচ্ছে, আমরা এমন অনেকেই আছি যারা ওয়েবসাইট বিষয়ক খুব একটা বুঝি না। যেহেতু ওয়েবসাইট বিষয়ক বুঝি না তাহলে তো কোডিং দক্ষতাও নাই, তাহলে আপনি কীভাবে একটা আউটসোর্সিং এর জন্য প্লাটফর্ম তৈরি করবেন এটাই আসল কথা। আপনি যদি ডেভেলপার দিয়ে করাতে চান তবে সেটাও ভালো হবে তবে নতুন নতুন নিজে চেষ্টা করাই ভালো বলে আমি মনে করি কারণ কাজটা যদি আপনি করেন এতে আপনার ওয়েবসাইটও রেডি হবে এবং এই বিষয়ে আপনার দক্ষটা বাড়তে থাকবে।

আপনারা অনেকেই কম বেশী ওয়ার্ডপ্রেস এর নাম শুনেছেন হয়তো, ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে বর্তমানে সর্বাধিক জনপ্রিয় ব্লগ পাবলিশিং অ্যাপ্লিকেশন এবং শক্তিশালী কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (CMS) যা
পিএইচপি এবং মাইএসকিউএল দ্বারা তৈরিকৃত ওপেন সোর্স ব্লগিং সফটওয়্যার। ওয়ার্ডপ্রেস দ্বারা
কোনো প্রকার পিএইচপি, মাইএসকিউএল বা
এইচটিএমএল জ্ঞান ছাড়াই একটি প্রোফেশনাল
মানের ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব খুব সহজেই।

ওয়ার্ডপ্রেস এর চাহিদা এবং কাজের সংখ্যা বেড়ে
চলেছে প্রতিদিন, যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইট
বানানোর জন্য বর্তমানে সেরা সিএমএস
প্ল্যাটফর্ম। ম্যাট মুলেনওয়েগ ২০০৩ সালের
২৭শে মে এটি প্রাথমিক ভাবে প্রকাশ করেন এই সিএমএস, ওয়ার্ডপ্রেস – কে সংক্ষেপে এ WP বলা হয়ে থাকে। বর্তমানে ওয়ার্ডপ্রেস সিএমএস ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই যেকোনো ওয়েবসাইট বানিয়ে ফেলতে পারেন খুবই কম সময়ে। কেবল ফ্রিল্যান্স ক্যারিয়ারই নয় কর্পোরেট এবং বহুজাতিক কোম্পানিগুলোতেও এখন ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপারদের চাহিদা অনেক।

একজন দক্ষ ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার হওয়া সময় এবং কষ্ট সাপেক্ষ ব্যাপার। কোনো প্রতিষ্ঠানই কাউকে দক্ষ ডেভেলপার হিসেবে গড়ে তুলতে পারে না খুব বড়জোর এক্সপার্ট হিসেবে গড়ে তুলতে পারে। দক্ষ ডেভেলপার হিসেবে নিজেকে গড়ে
তুলতে হলে নিজের পরিশ্রম ও প্রচেষ্টার বিকল্প নেই। তবে পরিকল্পিত ভাবে লেগে থাকলে অবশ্যই শেখা সম্ভব। ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট নিয়ে কাজ করার জন্য অবশ্যই এইচটিএমএল, সিএসএস জানতে হবে। সেই সঙ্গে জেকুইয়ারী, জাভাস্ক্রিপ্ট এবং ব্যাকএন্ড ডেভেলপমেন্টের জন্যে পিএইচপি এবং মাইএসকিউএল জানার প্রয়োজন হবে। আর কেবল ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশনের জন্য এইচটিএমএল, সিএসএস এবং ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রেমওয়ার্কেরও ব্যবহার জানা থাকলেই চলবে।

আজকের টিউটোরিয়াল এ আমি আপনাদের দেখাবো কীভাবে লোকাল হোস্ট এর মাধ্যমে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করে শিখা শুরু করবেন, আমি মনে করি প্রথমত নতুনদের জন্য লোকাল হোস্ট ব্যবহার করাই বেশী ভালো, কারণ আপনি লোকাল হোস্ট ব্যবহার করে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করে খুব সুন্দর ভাবে আপনি শিখার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যেতে পারেন, তারপর যখন সকল কিছু ভালো মতো ব্যবহার শিখবেন তখন ডোমাইন এবং হোস্টিং কিনে শুরু করতে পারেন আপনার আউটসোর্সিং এর প্লাটফর্ম, লোকাল হোস্ট ব্যবহার করার জন্য আপনাকে একটা সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে যার নাম Penguin এই সফটওয়্যার এর সার্ভারটা বেশ ভালো আশা করছি আপনাদের ভালো লাগবে কারণ এটা আমি নিজেও ব্যবহার করি, আর এই সফটওয়্যারটা আপনি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

App Name: Penguin
App Size: 15.16 MB

Download Link

আশা করছি আপনারা সফটওয়্যারটা ডাউনলোড করে নিয়েছেন এবং আমিও ডাউনলোড আর ইন্সটল করে নিয়েছি স্ক্রিনশট দেখুন।

এখন আপনাদের ওয়ার্ডপ্রেস সফটওয়্যারটা লাগবে, আমি অলরেডি ডাউনলোড করে রেখেছি আপনারাও ডাউনলোড করে নিন।

WordPress:

Download Link

গুড, এখন আপনার সকল কাজ শেষ, আপনি Penguin সফটওয়্যারটা ওপেন করুন।

এখন স্ক্রিনশট এ দেখানো সুইচটা অন করে দিন।


এখন দেখুন সার্ভার স্টার্ট হচ্ছে।

এখন দেখুন সুইচ অন হয়ে গেছে।

এখন আপনাকে একটা ডাটাবেজ তৈরি করে নিতে হবে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করার জন্য, ডাটাবেজ তৈরি করতে PhpMyAdmin এ ক্লিক করুন।

এখন আপনাকে একটা ব্রাউজার সিলেক্ট করে নিতে বলবে, আপনার যেটা পছন্দ ওটা সিলেক্ট করে নিবেন আমি আমার ফোনের ডিফল্ট ব্রাউজারটা সিলেক্ট করে নিচ্ছি।

এখন স্ক্রিনশট এর মতো একটা লগইন পেজ পাবেন, Username দিন root এবং পাসওয়ার্ড এর বক্স ফাঁকা রাখুন তারপর Go বাটন এ ক্লিক করুন।

এখন Databases এ ক্লিক করুন।

এখন ডাটাবেজ নাম দিন এবং Create বাটন এ ক্লিক করুন।

এখন দেখুন ডাটাবেজ তৈরি হয়ে গেছে।

এখন আপনার ফাইল ম্যানেজার এ প্রবেশ করুন এবং দেখুন একটা ফোল্ডার তৈরি হয়েছে www নামে ওটাই ক্লিক করুন।

আপনি যে ওয়ার্ডপ্রেস ডাউনলোড করেছিলেন, ওটা এই www ফোল্ডার এ পেস্ট করুন।

এখন আপনাকে এই জিপ ফাইল – কে আনজিপ করতে হবে তার জন্য আমি Long Press করছি, আমি ES File Manager ব্যবহার করছি এটা থেকে আনজিপ করা অনেক সহজ আপনারা চাইলে ব্যবহার করতে পারেন নয়তো আনজিপ করার জন্য আলাদা সফটওয়্যারও ব্যবহার করতে পারেন। এখন আমি More ক্লিক করবো।

এখন Extract To তে ক্লিক করুন।

এখন Ok বাটন এ ক্লিক করুন।

এখন দেখুন আনজিপ হচ্ছে।

গ্রেট, আমাদের আনজিপ হয়ে গেছে দেখুন। এই চিহ্নিত করা জিপ ফাইল এর আর প্রয়োজন নাই আমাদের এটা ডিলেট করে দিবেন।

সুপার, এখন আপনার কাজ শেষ এখন আপনি আপনার পছন্দনীয় একটা ব্রাউজার সিলেক্ট করুন এবং http://localhost:8080 তে যান।

এখন আপনাকে ওয়ার্ডপ্রেস এর কনফিগারেশন সেটআপ দিতে হবে, Let’s Go বাটন এ ক্লিক করুন।

এখন আপনি Database Name দিন এবং Username দিন root এবং পাসওয়ার্ড এর বক্স ফাঁকা রাখুন।

এখন Submit বাটন এ ক্লিক করুন।

এখন Run The Install বাটন এ ক্লিক করুন।

এখন আপনাকে কিছু প্রাথমিক তথ্য দিতে হবে যেটা ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করার সময় প্রয়োজন হয়।

এখন আপনার একটা যেকোনো ইমেল এড্রেস দিন এবং Install WordPress বাটন এ ক্লিক করুন।

দেখুন, আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল সফল হয়েছে এখন আপনি Login বাটন এ ক্লিক করুন।

এখন আপনার ইউজার নাম এবং পাসওয়ার্ড দিন তারপর Login বাটন এ ক্লিক করুন।

দেখুন আপনার ওয়ার্ডপ্রেস এডমিন প্যানেল এ ঢুকতে সক্ষম হয়েছে।

এখন দেখুন আপনার ওয়েবসাইট রেডি লোকাল হোস্ট এ।

এখনো যারা বুঝতে সক্ষম হয়ে উঠেনি, তাদের জন্য ভিডিও টিউটোরিয়াল তৈরি করেছি দেখুন।

আশা করছি আজকের টিউটোরিয়াল এর মাধ্যমে আপনারা বেশ উপকার পাবেন।

বি.দ্রঃ এই কনটেন্ট তৈরির জন্য আমি ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল এর সময় ইউজার নাম এবং পাসওয়ার্ড এডমিন দিয়েছি বাট আপনারা যখন ডোমাইন হোস্টিং ক্রয় করে ইন্সটল করবেন ওয়ার্ডপ্রেস, তখন শক্ত ইউজার নাম এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করবেন নইলে আপনার ওয়েবসাইট হ্যাক হয়ে যেতে পারে খুব সহজেই।

আমি একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আমি ইউটিউব এ আপনাদের জন্য সকল রকম কনটেন্ট পাবলিশ করবো, আমি আমার একটা কনটেন্ট এ বলেছিলাম যাদের সমস্যা আছে ফেসবুক রিলেটেড তারা যোগাযোগ করলে ফিক্স করে দিবো, কিন্তু আমি ২৭জন এর সাহায্য করতে সক্ষম হয়েছি অনেকেই বুঝতে পারছে না আমি বলছি, তাই তারা অনেকেই বুঝিনি। আমি আমার ইউটিউব চ্যানেল এ ফেসবুক আইডি ব্যাক করা, কপিরাইট ডিজেবল আইডি ব্যাক করা এবং যেকোনো ডিজেবল আইডি ব্যাক করা এবং সকল রকম রিপোর্ট কীভাবে করতে হয় একাউন্ট ডিজেবল করতে হয় কীভাবে এইগুলো নিয়ে আমার ইউটিউব চ্যানেল এ ভিডিও তৈরি করবো আশা করছি ভিডিও এর মাধ্যমে আপনারা আরও ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন। যদি ভালো লাগে আমার ইউটিউব চ্যানেলটা Subscribe করে রেখেন।

My YouTube Channel Link: Subscribe My YouTube Channel

তাহলে সকলেই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুক ট্রিকবিডির সাথেই থাকুন।

সৌজন্যেঃ TrickRed.com





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar




Windows 10 Kaufen Windows 10 Pro Office 2019 Kaufen Office 365 Lizenz Windows 10 Home Lizenz Office 2019 Home Business Kaufen Windows 10 Lisans Office 2019 Mac Satın Al