ad720-90

[IObit Driver Booster Pro v7.1.0.534] পিসি স্লো, সাউন্ড কম, মনিটর ব্লিংক করে, পেন ড্রাইভ শো করে না, ভালো অডিও রেকর্ড হয় না? সমাধান নিয়ে নিন, আর যারা পিসি কেনার পরে ড্রাইভার আপডেট করেননি, আপনার সাধের পিসির হার্ডওয়ার নস্ট হওয়ার আগেই আপডেট হয়ে নিন


অনেক দিন পরে লিখতে বসা, আজকের পোস্ট উইন্ডোসকে নিয়ে।  আপনারা যারা টাইটেল এর সমস্যা গুলোতে ভুগছেন তাদের সমাধান হয়ত আজ হয়ে যাবে।  আর যারা পিসি কিনার পরে আপনার পিসির ড্রাইভার গুলো আপডেট করেননি বা জানেনিনা ড্রাইভার কি? এর কাজ কি? এ দিয়ে কি হবে, তাহলে আজ তাদের জন্য আমার এই পোস্ট।

ড্রাইভার কি? আপনার পিসির যেসব হার্ডওয়ার আসে (মাদারবোর্ড, ইউএসবি পোর্ট, সাউন্ডকার্ড, গ্রাফিক্সকার্ড) তারা কিন্তু শুধু মাত্র মাদারবোর্ড আর পাওয়ার সাপ্লাইয়ার সাথে কানেক্ট করে দিলে চলবে না।  তাদের জন্য বিশেষ কিছু সফটওয়্যার এর প্রয়োজন আর এই সফটওয়্যার গুলোকে বলা হয় ড্রাইভার, যারা মুলত সরাসরি আপনার পিসির বিভিন্ন কাজ(গান শুনা, ভিডিও দেখা, গেম খেলা, ইন্টারনেট ব্যবহার করা) করে দেয় না, বরং এই ড্রাইভার গুলো আপনার সেই কাজ গুলো করার জন্য আপনার পিসির হার্ডওয়ারকে নির্দেশ দেয়।

এবার আসা যাক কেন আপনার এই ড্রাইভার গুলোকে আপডেট করা প্রয়োজন বা কেনই বা ড্রাইভার এর দরকার, আগেই বলেছে এই ড্রাইভার হচ্ছে আপনার পিসির হার্ডওয়ারকে নির্দেশ দেয়, সো এদের সারা আপনি অচল, এবার আসা যাক কেন আপডেট করতে হবে? এটা তো একদম সহজ কথা, আপনি কেন আপনার মোবাইল বা পিসির সফটওয়্যার গুলো আপডেট করেন? অবশ্যই, নতুন অনেক ফিচারস বা আগের ভার্সনে যদি কোন বাগ বা প্রোবলেম থাকে তা ঠিক করার জন্য।  ঠিক একই কথা ড্রাইভার এর ক্ষেত্রে।

এই ছিল ড্রাইভার কি আর তার কি দরকার বা কদর করার, এবার যাব কিছু টোপ ড্রাইভার আপডেটার নিয়ে, যাদের মাধ্যমে আপনি সহজেই আপনার পিসির ড্রাইভার গুলোকে আপডেট বা যে ড্রাইভার মিসিং আসে সেইটা ইনস্টল করার।

আজ কথা বলব IObit Driver Booster এটি একটি অসাধারন সফটওয়্যার ড্রাইভার আপডেট করার জন্য, আমি নিজেও ব্যবহার করি।  বেশি কিছু বলার নেই কারন বেশির ভাগ কথা আগেই বলে ফেলেছি, এই ড্রাইভার আপডেটারটা IObit ডেভলোপারদের বানানো, আর কিছু তেমন বলার নেই, এবার সরাসরি ফিচারস চলে যাব।  তার আগে যেই কথা সেটা হল, আমি বরাবর প্রো বা প্রিমিয়াম ভার্সন শেয়ার করি আজও তার বিপরিত কিছু হবে না, আর এই সফটওয়্যার এর প্রিমিয়াম ভার্সন এর জন্য আপনাকে গুনতে হত ১৯৫০টাকা যা আমি ফ্রিতে নেওয়ার পদ্ধতি বাতলে দিব।  তার আগে একটি সেলফি হলে কেমন হয়?

Iobit Driver Pro

সাধারন ভার্সনে কি কি ফিচারস আসেঃ

  • যেকোন অপারেটিং সিস্টেম এর ড্রাইভার আপডেট করতে পারে
  • অন্য বাকি সব ড্রাইভার আপডেটার থেকে ৩০০ গুন বেশি তারাতারি আপডেট করতে পারে (কথা সত্য আমার কাছে প্রমান আসে)
  • গেমিং পিসির জন্য পারফেক্ট পার্ফোমেন্স দিবে
  • ড্রাইভার আপডেটের আগেই ব্যাকআপ করে নেয়

প্রিমিয়াম ভার্সনে কি কি ফিচারস আসেঃ

  • প্রিমিয়াম ভার্সনে উপরের সব তো থাকবেই সাথে থাকবে
  • এক সাথে যত গুলো ড্রাইভার আপডেট করা দরকার তা এক ক্লিকে করতে পারবেন
  • আপনার হার্ডওয়ার এর নতুন যদি কিছু আপডেট আসে তা আপডেট করবে
  • সাধারন ভার্সনে তুলনায় এই ভার্সনে গেম পার্ফোমেন্স বেশি পাবেন
  • নিজে থেকে ড্রাইভারদের উপর নজর রাখবে, আউটডেটেড হলে ঘারধরে বের করে দিয়ে নতুন কে নিয়ে আসবে
  • ভাই আরও অনেক ফিচারস আসে লিখতে পারছি না ব্যবহার করে দেখুন আর নিচে তো ডেভলোপারদের লিঙ্ক দিব সেখান থেকে দেখে নিয়েন (তারা কিন্তু আবার আমার মত বাংলায় বলবে না)

ডাউনলোড করুন

ডিরেক্ট ডাউনলোড লিঙ্ক ১ঃ  Download

ডিরেক্ট ডাউনলোড লিঙ্ক ২ঃ  Download

প্রিমিয়াম সোর্সঃ IObit Driver Booster Pro Crack

  • নিয়মিত এই এপস এর প্রিমিয়াম ভার্সন আপডেট পেতে উপরে ওয়েবসাইট ভিসিট করতে পারেন।  🔔বা আপনি যদি ফেসবুক ব্যবহার কারি হয়ে থাকেন, তো নিয়মিত সব উইন্ডোস এর প্রিমিয়াম সফটওয়্যার ফ্রিতে ডাউনলোড করার জন্য আপডেট পেতে এখানে গিয়ে ম্যাসেজ করুন “Windows” লিখে এবং প্রতি সপ্তাহে কি কি সফটওয়্যার আপডেট হল বা নতুন কি কি সফটওয়্যার আসল তা আপনাকে মেসেজ করে জানানো হবে।  মিস করলে লস।  🔔

ডেভলোপার ওয়েবসাইটঃ Website Free Version

ডেভলোপার ওয়েবসাইটঃ Website Pro Version


কিভাবে ইনস্টল ও একটিভ করবেনঃ

  1. উপর থেকে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করুন
  2. এবার Extract করুন Winrar বা 7zip দিয়ে। যদি না থেকে এখান থেকে ডাউনলোড করে নিন
  3. এবার “Setup” ফোল্ডার গিয়ে সফটওয়্যারটি ইনস্টল/ওপেন করুন
  4. এবার “Crack” ফোল্ডারে ঢুকুন
  5. এবার দেখুন “Loader” নামের একটি ফাইল আসে সেটি Extract করুন Winrar বা 7zip দিয়ে
  6. এবার এই Loader টিকে আপনার সদ্য ইনস্টল করা সফটওয়্যার এর ফাইল লোকেশনে ঢুকে Paste করে দিন
  7. এবার এই Loader টি কে মাউসের রাইট বাটন ক্লিক করে “Run as Administrator” ক্লিক করে ওপেন করুন
  8. দেখুন আপনার ফ্রি ভার্সন সফটওয়্যার এখন প্রো ভার্সন দেখাছে
  9. এই ছিলো ফুল ভার্সন বা একটিভ করার নিয়ম

এইতো ছিল যত নিয়ম কানুন, আর কোথাও কিছু বুঝতে বা করতে প্রোবলেম হলে নিচে একটা বক্স দেওয়া আসে।  সেখানে গিয়ে আপনার মনের কথা ব্যক্ত করতে পারবেন বা এই পোস্ট এর কোথাও কিছু বুঝতে বা করতে সমস্যা হলে উপরের ম্যাসেজ বাটনে ক্লিক করে লিখুন “Help” এবং সেন্ড করে দিন আশা করি খুব তারাতারি সাহায্য পেয়ে যাবেন।  আর হ্যা কেমন হলো আজকের আয়োজন তাও জানাতে ভুলবেন না কিন্তু।  টাটা

 

আর হ্যা, পোস্টা যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে লাইক, কমেন্ট, শেয়ার করতে কিন্তু ভুলবেন না। 

নিয়মিত এন্ড্রয়েড এবং উইন্ডোস এর নতুন সব এপস এর আপডেট পাওয়ার জন্য উপরের “Message Us” বাটনে ক্লিক করে এন্ড্রয়েড হলে “Android” আর উইন্ডোস হলে “Windows” লিখে সেন্ড করে নতুন সব এপস এর আপডেট এর মেসেজ পান ফ্রিতে।





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar




Windows 10 Kaufen Windows 10 Pro Office 2019 Kaufen Office 365 Lizenz Windows 10 Home Lizenz Office 2019 Home Business Kaufen Windows 10 Lisans Office 2019 Mac Satın Al