ad720-90

জাহাজ থেকে টাচস্ক্রিন বাদ দিচ্ছে মার্কিন নৌ বাহিনী


টাচস্ক্রিন কন্ট্রোলের সঙ্গে নাবিকরা অভ্যস্ত না হওয়ায় দুইটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে মারা গেছেন ১৭ জন নৌ সেনা। এ কারণেই পুরানো কন্ট্রোল ব্যবস্থায় ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির নৌ বাহিনী– খবর বিবিসি’র।

দুর্বল প্রশিক্ষণের কারণে নাবিকরা জরুরী অবস্থায় টাচস্ক্রিনের জটিল ব্যবস্থা ব্যবহার করতে পারেন না। জরিপে দেখা গেছে তারা হুইল এবং থ্রটল দিয়ে জাহাজ নিয়ন্ত্রণ করতে বেশি পছন্দ করেন।

২০১৭ সালের জুন মাসে ইউএসএস ফিটজজেরাল্ড এবং ২০১৭ সালের অগাস্ট মাসে ইউএসএস ম্যাককেইনের দুর্ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদনে দেখেছে মার্কিন নৌ বাহিনী।

জাপানি মেইনল্যান্ডে একটি কন্টেইনার জাহাজের সঙ্গে সংঘর্ষ হয় ফিটজজেরাল্ডের। এতে প্রাণ হারান সাত নাবিক। অন্যদিকে সিঙ্গাপুরের উপকূলে একটি কন্টেইনার জাহাজের সঙ্গে সংঘর্ষ হয় ম্যাককেইনের। এই ঘটনায় নিহত হন ১০ জন নাবিক।

দুর্ঘটনার পর জেষ্ঠ্য কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ‘অবেহেলায় হত্যার’ অভিযোগ আনা হয় এবং অন্যান্যদেরকে বাহিনী থেকে অপসারণ করা হয়। তদন্তে দেখা গেছে দুইটি ঘটনায়ই একাধিক ভুল থাকলেও তা এড়ানো সম্ভব ছিল।

যুদ্ধজাহাজে টাচ ন কন্ট্রোল যোগ এই দুর্ঘটনাগুলোর মূল কারণ বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।  

মার্কিন নৌ বাহিনীর জাহাজগুলোর নকশা পর্যবেক্ষক রিয়ার অ্যাডমিরাল বিল গেলিনিস বলেন, এই কন্ট্রোল ব্যবস্থা “অসম্ভবরকম জটিল” কারণ এগুলো কীভাবে কাজ করা উচিত সে বিষয়ে জাহাজ নির্মাতাদের সামান্যই নির্দেশিকা রয়েছে।

এই কারণে ভিন্ন ভিন্ন জাহাজের কন্ট্রোল প্রায়ই এক রকম হয় না। ফলে জাহাজ কোন দিকে এগোচ্ছে এই তথ্য এমন গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো পর্দার কোথায় দেখানো হচ্ছে তা নাবিক সহজে খুঁজে পান না।

বর্তমানে থ্রটল এবং হুইল ব্যবস্থা বানাচ্ছে মার্কিন নৌ বাহিনী। ২০২০ সালের গ্রীষ্মে জাহাজ থেকে টাচস্ক্রিন কন্ট্রোল ব্যবস্থা বাদ দিয়ে এই ম্যানুয়াল কন্ট্রোল চালু করার পরিকল্পনা করছে তারা।
 





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



istanbul escort