ad720-90

‘চীনে গুগলের সেন্সরড সার্চ ইঞ্জিন আনা বেকুবের কাজ’


“এটি আসলেই একটি বাজে ধারণা, একটি অর্থহীন, অর্থহীন উদ্যোগ। আমি কথা বলতে বাধ্য এবং বলতে চাই এটি ঠিক না,” বলেন সুই।

২০১১ এবং ২০১৪ সালের মধ্যে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের মুক্ত বাকস্বাধীনতা বিভাগের প্রধানের দায়িত্বে ছিলেন সুই।

চীনের জন্য গুগলের সেন্সরড সার্চ ইঞ্জিন তৈরির বিষয়টি আগের সপ্তাহেই সামনে আসে।

এই প্রকল্পের সাংকেতিতিক নাম দেওয়া হয়েছে ‘ড্রাগনফ্লাই’। রাজনীতি, মত প্রকাশের স্বাধীনতা, গণতন্ত্র, মানবাধিকার এবং শান্তিপূর্ণ অবরোধের মতো সংবেদনশীল সার্চ ব্ল্যাকলিস্ট করবে এই সার্চ ইঞ্জিনটি– খবর আইএএনএস-এর।

সুই বলেন, “আন্তর্জাতিক মানবাধিকার নীতিমালা অমান্য না করে চীনে গুগল সার্চ চালানোর কোনো পথ আমি দেখি না।”

চীনে নতুন সার্চ ইঞ্জিন প্রকল্প নিয়ে এখন পর্যন্ত কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়নি গুগল। বিষয়টি অস্বীকারও করেনি প্রতিষ্ঠানটি।

সুই বলেন, গুগল যদি সেন্সরড সার্চ ইঞ্জিন প্রকল্প সামনে নেয় তবে, তা প্রতিষ্ঠানের সার্বজনীন তত্ত্বের বিরুদ্ধে যাবে।

২০০৬ সালে দেশটিতে সার্চ ইঞ্জিন চালু করে গুগল। কিন্তু বাক স্বাধীনতা সীমিতকরণ এবং ওয়েবসাইট ব্লক করতে দেশটির সরকারী উদ্যোগের কারণে ২০১০ সালে সার্চ ইঞ্জিনটি বন্ধ করতে বাধ্য হয় মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি।





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort sakarya travesti webmaster forum