ad720-90

চিনে নিন ফেইসবুক ফেক আইডি


Monday, 27th August , 2018, 01:33 pm,BDST

Print Friendly, PDF & Email


লাস্টনিউজবিডি, ২৭ আগস্ট, নিউজ ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে মানুষের নির্ভরতা বাড়ছে। এসব মাধ্যমে নিজের পরিচয় লুকিয়ে রয়েছে অসংখ্য ফেক প্রোফাইল৷ কিন্তু এগুলো সহজেই চেনা যায় না। তবে বেশ কিছু উপায় রয়েছে ফেক প্রোফাইল চেনার।

১. প্রোফাইল পিকচার:

বেশ কিছু ছবি আছে যা অনেক ফেক আইডিতেই প্রোফাইল পিকচার হিসেবে ব্যবহার করা হয়৷ সেগুলো একটু ভাল করে দেখলেই বোঝা সম্ভব৷ সেসব ছবি যদি ব্যবহার হয়, তাহলে বুঝবেন ওই আইডি ফেক হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

আর কোনও ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট করার সময় দেখে নিন, সেই প্রোফাইলে খুব কম সংখ্যায় ছবি নেই তো? অনেক সময় মাত্র একটা ছবিও থাকে অনেকের প্রোফাইলে৷ সেসব ক্ষেত্রে আইডি-টি ফেক হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি৷

২. ফ্রেন্ডলিস্ট:

কারোর ফ্রেন্ডলিস্ট দেখাটা এখন সবক্ষেত্রে সম্ভব হয় না৷ কারণ অনেকেই নিজের ফ্রেন্ডলিস্ট পাবলিক করে রাখেন না। কিন্তু যদি থাকে, সেক্ষেত্রে দেখে নিন বন্ধুরা কারা৷ কারোর সঙ্গে আপনার মিউচুয়াল ফ্রেন্ড আছে কী না৷ যদি আছে তাহলে সেই মিউচুয়াল ফ্রেন্ড কেমন ব্যক্তি৷ এমনকী, নতুন বন্ধু সম্পর্কে সেই মিউচুয়াল ফ্রেন্ডকেও জিজ্ঞেস করে নিতে পারেন৷

মেয়েদের ক্ষেত্রে তাদের ফ্রেন্ডলিস্টে যদি ৩-৪ হাজার বন্ধু থাকে৷ তাহলেও সেটা অনেক সময় ফেক হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷ অনেক পুরুষ মানুষই আবার রয়েছেন, যারা মেয়েদের নামে এবং ছবি দিয়ে এক বা একাধিক ফেক প্রোফাইল খুলে রাখেন৷ কোনও অন্য মেয়ের প্রোফাইল থেকে ছবি নিয়ে ফেক প্রোফাইল তৈরি করেও অনেকে চ্যাট করেন৷

৩. খারাপ ছবি:

আইডিতে যদি কোনও কুরুচিকর বা পর্ন ছবি থাকে ৷ তাহলে সেই আইডি ফেক হওয়ার সম্ভাবনাই প্রবল৷ কারণ কোনও সুস্থ মস্তিষ্কের ব্যক্তিই চাইবেন না নিজের প্রোফাইলে এই ধরণের ছবি রাখতে৷

৪. পেজ লাইক:

আপনার সন্দেহের আইডিটি কী ধরনের পেজে লাইক দিয়েছে সেটা তার রিসেন্ট অ্যাক্টিভিটি দেখলেই স্পষ্ট হবে৷ ফেক আইডি-তে বেশ কিছু অ্যাডাল্ট সাইটের পেজে লাইক আপনি পাবেনই পাবেন৷ এছাড়া দেখে নিন প্রোফাইল ডিটেলস৷ সেখানে ওই ব্যক্তির স্কুল-কলেজ এবং অন্যান্য সব ডিটেলস খুঁটিয়ে দেখুন৷ সঙ্গে দেখুন ছবির অ্যালবামগুলি৷ তাহলেই প্রোফাইল সম্পর্কে একটা ধারণা জন্মাবে আপনার৷

৫. মোবাইল নম্বর:

কোনও মেয়ের আইডি-তে যদি দেখা যায় তাতে এক বা একাধিক মোবাইল নম্বর দেওয়া আছে, তাহলে বুঝতে হবে ওই আইডিটা ফেক। কারণ কোনও মহিলাই ফেসবুকে তার নম্বর পাবলিক করে রাখেন না। দিলেও সেটা ‘ওনলি মি’ করে রাখেন যাতে কেউ দেখতে না পারে।

লাস্টনিউজবিডি,তাওহীদ

Print Friendly, PDF & Email





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort sakarya travesti webmaster forum