ad720-90

দেখে নিন বিশ্বের সেরা ১৬ স্মার্টফোন


স্মার্টফোনের বাজারে প্রতিনিয়তই যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন সব ফিচারের স্মার্টফোন। এর মধ্যে ফ্লাগশিপ স্মার্টফোনগুলো তাদের আধুনিক সব ফিচারের মাধ্যমে চমক সৃষ্টি করছে স্মার্টফোনের বাজারে। ব্যবসা ও প্রযুক্তিবিষয়ক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট বিজনেস ইনসাইডার তাদের এক প্রতিবেদনে সেরা ১৬টি ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনের র‌্যাংকিং প্রকাশ করেছে:

১৬. ব্ল্যাকবেরি: স্মার্টফোনের বাজারে বর্তমানে দু:সময় চলছে ব্ল্যাকবেরির। এই দু:সময়ে ব্ল্যাকবেরির শেষ আশা তাদের ‘প্রিভ’ স্মার্টফোনটি। কেননা অ্যান্ড্রয়েডের রমরমা বর্তমান বাজারে এটি অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত ব্ল্যাকবেরির প্রথম স্মার্টফোন। ব্ল্যাকবেরি প্রিভ মডেলের নতুন এই স্মার্টফোনটি অন্যান্য অ্যান্ড্রয়েড ফোনের দেখতে হলেও, এর ডিজাইনে ভিন্ন রয়েছে। এতে স্লাইড সুবিধার কিবোর্ড যুক্ত রয়েছে। যারা স্লাইড সুবিধার স্মার্টফোন ব্যবহারে আগ্রহী এবং সে স্মার্টফোনে গুগলের অ্যাপসও চান, তাদের জন্য আদর্শ ব্ল্যাকবেরির প্রিভ স্মার্টফোনটি। ৫.৪ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১৮ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ৩ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ৩৪১০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ ৫.১.১। ব্ল্যাকবেরি প্রিভ-এর দাম ৭০০ ডলার।

১৫. মটোরোলা মোটো জি: সহজলভ্য দামের মধ্যে ভালো একটি স্মার্টফোন ব্যবহার করতে চাইলে, মটোরোলার ‘মটো জি’ স্মার্টফোনটি অতুলনীয়। এটি যে খুব শক্তিশালী একটি ফোন তা কিন্তু নয়, তবে দামের বিচারে যে ফিচার রয়েছে তাতে এটি অন্যতম সেরা একটি স্মার্টফোন। ৫.০ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ২৪৭০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ ৫.১.১। মটোরোলার মটো জি-এর দাম ১৮০ ডলার।

১৪. এইচটিসি ওয়ান এম৯: এইচটিসির নতুন ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন হচ্ছে এইচটিসি ওয়ান এম৯। এটি দেখতে খুবই আকর্ষণীয় এবং প্রিমিয়াম ডিজাইনের। তবে এইচটিসির সাড়া জাগানো ফ্ল্যাগশিপ সিরিজ ওয়ান এর নতুন ফোন এম৯-এর হতাশাজনক দিক রয়েছে। মূলত ডিজাইনকেই এই ফোনের সবচেয়ে প্রশংসনীয় দিক বলা হয়েছে। সেটুকু বাদ দিলে পূর্ববর্তী ফোনের তুলনায় নতুন ফোনটির পার্থক্য প্রত্যাশার চেয়ে কমই। মোবাইল পেমেন্টে সিস্টেম এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের জন্য এইচটিসি ওয়ান সিরিজ জনপ্রিয় হলেও নতুন এম৯ ডিভাইসটিতে বিশেষ এই দুইটি সুবিধা নেই। ৫.০ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ২০ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৪ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ৩ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ২৮৪০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ ৫.১.১। এইচটিসি ওয়ান এম৯-এর দাম ৬৫০ ডলার।

১৩. অ্যাপল আইফোন ৬: এটা ঠিক যে, আইফোন ৬ এক বছর আগে বাজারে এসেছে কিন্তু এই স্মার্টফোনটির জনপ্রিয়তায় এখনো ভাটা পড়েনি। এমনকি সম্প্রতি বাজারে আসা আইফোন ৬এস এর মতোই এটি। আপনার হাতে এই ফোনটি দেখে অন্যরা ধারণা করতে পারবে না যে, এটি আইফোনের গত বছরের মডেল। ৪.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ১.২ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ১ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ১৮১০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম আইওএস ৮। আইফোন ৬-এর দাম ৫৪৯ ডলার।

১২. অ্যাপল আইফোন ৬ প্লাস: দীর্ঘ ডিসপ্লের স্মার্টফোন হিসেবে বাজারে এখনো সবার চেয়ে সেরা অ্যাপলের আইফোন ৬ প্লাস। গত বছরের এই মডেলটি ব্যবহারে সদ্য বাজারে আসা অ্যাপলের আরো উন্নত সংস্করণ আইফোন ৬এস প্লাসের কাছাকাছিই অভিজ্ঞতা মিলবে এবং ১০০ ডলার সাশ্রয়ও হবে নতুন আইফোন ৬এস প্লাসের পরিবর্তে আইফোন ৬ প্লাস ব্যবহারে। ৫.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ১.২ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ১ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ২৯১৫ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম আইওএস ৮। আইফোন ৬-এর দাম ৬৪৯ ডলার।

১১. ওয়ান প্লাস ২: স্মার্টফোন নির্মাতা নতুন চাইনিজ প্রতিষ্ঠান ওয়ানপ্লাস। ইতিমধ্যে ওয়ান প্লাস তাদের আকর্ষণীয় কনফিগারেশনের স্মার্টফোনের মাধ্যমে সকলের নজর কাড়তে সক্ষম হয়েছে। যদি অত্যাধুনিক ফিচার সমৃদ্ধ স্মার্টফোন সহজলভ্য দামের মধ্যে পেতে চান, তাহলে ওয়ান প্লাস ২ সেরা। ওয়ানপ্লাস ২ স্মার্টফোনটি বিশ্বের যে কোনো দেশের বাজারে পাওয়া যাবে না। কেননা ওয়ানপ্লাস থেকে সরাসরি অর্ডারের মাধ্যমে কেনা লাগে তাদের স্মার্টফোন। পাশাপাশি সরবরাহ সীমিত। ৫.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ৩ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ৩৩০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ ৫.১। ওয়ান প্লাস ২-এর দাম ৩২৯ ডলার।

১০. মটোরোলা মটো এক্স পিওর: এ বছরের অন্যতম বহুল আলোচিত ও প্রতীক্ষিত স্মার্টফোন মটোরোলার মটো এক্স পিওর মডেলটি। বলা যায় সহজলভ্য দামে সর্বোচ্চ উন্নত সুবিধা মিলবে এই স্মার্টফোনটিতে। ৫.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটিতে টার্বো পাওয়ার চার্জিং, ওয়াটার প্রটেকশন ফিচারসহ নানা সুবিধা রয়েছে। মটোরোলা মটো এক্স পিওর-এর দাম ৩৯৯.৯৯ ডলার।

৯. এইচটিসি ওয়ান এ৯: এই স্মার্টফোনটিকে বলা হচ্ছে, অ্যাপলের আইফোন ৬এসের বিকল্প। এইচটিসির নতুন এই স্মার্টফোনটির সঙ্গে আইফোন ৬ এসের বেশ কিছু সাদৃশ্য রয়েছে। ধাতব কাঠামোতে এইচটিসি ওয়ান এ৯ ফোনটিতে একক স্পিকার, গোলাকার ক্যামেরা সেটআপসহ বেশ কিছুতে আইফোনের সঙ্গে মিল রয়েছে। ৫.০ ইঞ্চি ডিসপ্লের এইচটিসির নতুন এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ২১৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড মার্শাম্যালো ৬.০। এইচটিসি ওয়ান এ৯-এর দাম ৪৯৯ ডলার।

৮. স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ৬: একটা উন্নত ফ্লাগশিপ স্মার্টফোনের মধ্যে আপনি যা প্রত্যাশা করেন, তার সবই রয়েছে স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি এস৬ স্মার্টফোনে। অন্যতম সেরা ডিজাইনের এই স্মার্টফোনটিতে ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর প্রযুক্তি এবং স্যামসাংযের নতুন মোবাইল পেমেন্টে সিস্টেম ‘স্যামসাং পে’ রয়েছে। ৫.১ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১৬ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ৩ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ২৫৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ ৫.০.২। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬-এর দাম ৬০০ ডলার।

৭. স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৫: স্যামসাংযের গ্যালাক্সি নোট ৫ বৃহৎ ডিসপ্লের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ফোন। প্রিমিয়াম এই স্মার্টফোনটিতে এস পেন, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, এনএফসি ও দ্রুতগতিতে চার্জ দেওয়ার প্রযুক্তি রয়েছে। ৫.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১৬ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ৪ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ ৫.১.১। স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৫-এর দাম ৭৪০ ডলার।

৬. স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬ এজ: চলতি বছরে স্যামসাং অসাধারণ সব ফ্লাগশিপ স্মার্টফোন বাজারে নিয়ে এসে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। তেমনই একটি সেরা স্মার্টফোন হচ্ছে গ্যালাক্সি এস৬ এজ। এটি অনেকটা গ্যালাক্সি এস৬ এর মতো হলেও, বিশেষত্ব হচ্ছে এর অসাধারণ কার্ভড স্ক্রিন। এটি বিশ্বের প্রথম দুই দিকে বাঁকানো ডিসপ্লেযুক্ত স্মার্টফোন। ৫.১ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১৬ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ৩ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ২৬০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ ৫.০.২। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬ এজ-এর দাম ৬০০ ডলার।

৫. স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬ এজ প্লাস: স্যামসাংয়ের ‘গ্যালাক্সি এস৬ এজ’ সিরিজের বৃহৎ ডিসপ্লের ফোন ‘গ্যালাক্সি এস৬ এজ প্লাস’। স্যামসাংযের এ যাবত কালের তৈরি স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে সেরা স্মার্টফোন এটি। সেটটির পাশ বাঁকানো। নামের সঙ্গে ‘প্লাস’ জুড়ে দেওয়া হয়েছে। কারণ এর স্ক্রিন আগের মডেলের চেয়ে বেড়েছে। ৫.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১৬ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ৪ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ ৫.১.১। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬ এজ প্লাস-এর দাম ৮১৫ ডলার।

৪. নেক্সাস ৫এক্স: গুগলের নতুন ফ্লাগশিপ স্মার্টফোন নেক্সাস ৫এক্স। এবং বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা ফোন এটি। স্মার্টফোনটিকে আইফোনের উপযুক্ত প্রতিদ্বন্দ্বীও বলা যেতে পারে। আপনার যদি আইফোন কেনার ইচ্ছা না থাকে এবং বাজারের অন্যতম সেরা অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারের ইচ্ছা থাকে, তাহলে নিক্সাস ৫এক্স আপনাকে হতাশ করবে না। গুগলের পক্ষে নেক্সাস ৫এক্স স্মার্টফোনটি বাজারে এনেছে এলজি। ৫.২ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১২.৩ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ২৭০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড মার্শাম্যালো ৬.০। এলজি নেক্সাস ৫এক্স-এর দাম ৩৭৯ ডলার।

৩. নেক্সাস ৬পি: গুগলের নতুন ফ্লাগশিপ স্মার্টফোন নেক্সাস ৫এক্সের তুলনায় কিছুটা উন্নত ও বড় ডিসপ্লে সুবিধাসম্পন্ন গুগলের নেক্সাস ৬পি স্মার্টফোনটি। এটিও বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা একটি ফোন। গুগলের পক্ষে নেক্সাস ৬পি স্মার্টফোনটি বাজারে এনেছে হুয়াউয়ে। ৫.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১২ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ৩ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ৩৪৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড মার্শাম্যালো ৬.০। হুয়াউয়ে নেক্সাস ৬পি-এর দাম ৪৯৯ ডলার।

২. অ্যাপল আইফোন ৬এস প্লাস: সম্প্রতি বাজারে আসা অ্যাপলের নতুন আইফোন ৬এস প্লাস হচ্ছে, বড় ডিসপ্লের স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে সর্বশ্রেষ্ঠ। দেখতে অনেকটা গত বছরের আইফোন ৬ প্লাসের মতো হলেও, নতুন আইফোন ৬এস প্লাস স্মার্টফোনটিতে বিভিন্ন নতুন ফিচার রয়েছে। এর মধ্যে থ্রিডি টাচ প্রযুক্তি উল্লেখ্য। ৫.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১২ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ২৭৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম আইওএস ৯। আইফোন ৬এস প্লাস-এর দাম ৭৪৯ ডলার।

১. অ্যাপল আইফোন ৬এস: সম্প্রতি বাজারে আসা অ্যাপলের নতুন আইফোন ৬এস হচ্ছে, বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত স্মার্টফোন। আইফোন ব্যবহারকারীদের সুবিধা হচ্ছে, অ্যাপ ডেভেলপাররা বরবরই সেরা অ্যাপটি সবার আগে আইফোন ব্যবহারকারীদের জন্যই তৈরি করে থাকে। আর অ্যাপলের সবার চেয়ে নতুন ও সেরা প্রযুক্তি নিয়ে তো নতুন করে বলার কিছুই নেই। এ কারণেই বিশ্বব্যাপী আইফোনের এতো চাহিদা। ৪.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা ১২ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ১৭১৫ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। অপারেটিং সিস্টেম আইওএস ৯। আইফোন ৬এস-এর দাম ৬৪৯ ডলার।





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort sakarya travesti webmaster forum