ad720-90

যেসব কাজে লাগাতে পারেন পুরানো স্মার্টফোন


নতুন নতুন প্রযুক্তির দারুন দারুন সব স্মার্টফোন বাজারে আসছে। আমরা নতুন ফোন কেনার পর পুরানো ফোনগুলি (old-smartphone) বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিক্রি করে দিই, আর কিছু মানুষ আছেন যারা ফোনগুলি ড্রয়ারে ফেলে রাখেন। ধরুন আপনার একটি স্মার্টফোন রয়েছে যার র‌্যাম ৫১২ এমবি-র এবং প্রসেসর ডুয়েল কোর, কিনেছিলেন মাস ছয়েক আগে। সেটা বিক্রি করতে গেলে আপনি অর্ধেক দামও পাবেন না। তবে কি করা উচিৎ? আপনি কিন্তু নানাভাবে আপনার সেই ফেলে রাখা পুরানো স্মার্টফোনটি ব্যবহার করতে পারেন। কীভাবে?  আসুন দেখে নেওয়া যাক কয়েকটি চমৎকার পদ্ধতি।

মিডিয়া প্লেয়ার হিসেবে: আপনার যদি একটি অব্যবহৃত স্মার্টফোন থাকে তবে আপনি ডিভাইসটিকে মিডিয়া প্লেয়ার হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন। যেহেতু মিডিয়া প্লেয়ারের জন্য একটি ডিভাইসকে অনেক বেশি হাই-কনফিগারড হতে হয়না তাই বেশ পুরনো স্মার্টফোনকেও কিন্তু এক্ষেত্রে চমৎকার মিডিয়া প্লেয়ার হিসেবে কাজ করতে পারে।

এক্সটার্নাল মেমরি ড্রাইভ হিসেবে: মিডিয়া প্লেয়ারের পাশাপাশি কিন্তু আপনি সহজেই একটি পুরানো স্মার্টফোনকে একটি চমৎকার এক্সটার্নাল মেমরি ড্রাইভ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। আমরা নানা রকম ডেটা বহনের জন্য সিডি, ডিভিডি, পেন ড্রাইভ বা হার্ডডিস্ক ড্রাইভ ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু একবার চিন্তা করে দেখুন, আপনি এই কাজে স্মার্টলি কাজে লাগাতে পারেন একটি স্মার্টফোনকে। কেননা, একটি ৮ বা ১৬ জিবির পুরনো স্মার্টফোনে আপনি যেকোন ধরনের ফাইল সংরক্ষণ করতে পারবেন।

পোর্টেবল জিপিএস ম্যাপ হিসেবে: পুরানো স্মার্টফোনকে পোর্টেবল জিপিএস হিসেবে ব্যবহার করুন। আপনি আপনার গাড়ি, সাইকেল এবং এমনকি হাঁটার সময়েও ব্যবহার করতে পারবেন। এজন্য আপনার দরকার হবে Here এর মত একটি অ্যাপ্লিকেশন। যেগুলি ইন্টারনেট কানেকশন ছাড়াই কাজ করতে সক্ষম।

ইউনিভার্সাল রিমোট হিসেবে: আপনার যদি এমন একটি পুরানো বা অব্যবহৃত স্মার্টফোন থাকে যার মধ্যে ইনফ্রারেড সেন্সর রয়েছে তবে আপনি খুব সহজেই সেই স্মার্টফোনটিকে আপনার টিভি বা ডিভিডির জন্য রিমোট কন্ট্রোলে পরিবর্তিত করতে পারবেন।

ভিডিও গেম কনসোল হিসেবে: পুরানো স্মার্টফোনগুলোর হার্ডওয়্যার খুব বেশি শক্তিশালী না হওয়ায় হয়তো এখনকার হাই কনফিগারেশন গেলগুলি না খেলতে পারলেও কিন্তু আপনি ক্যান্ডি ক্রাশ, অ্যাঙ্গরি বার্ড গেমগুলো খেলতে পারবেন।

স্মার্ট ঘড়ি হিসেবে: একটি স্মার্টফোনকে স্মার্ট ঘড়িতে রূপান্তরিত করলে এটি চমৎকার কাজ করতে সক্ষম হবে। আপনি আপনার পুরানো স্মার্টফোনটিকে শুধু একটি ডিজিটাল ঘড়িই নয়, বরং একটি অ্যালার্ম ক্লক এবং ক্যালেন্ডার হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন।





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar




Windows 10 Kaufen Windows 10 Pro Office 2019 Kaufen Office 365 Lizenz Windows 10 Home Lizenz Office 2019 Home Business Kaufen Windows 10 Lisans Office 2019 Mac Satın Al