ad720-90

‘সস্তা’ আইফোন Xআর আনলো অ্যাপল


নতুন এই ডিভাইসটির নকশাসহ প্রায় সব প্রযুক্তিই আইফোন Xএস-এর মতো। এখানে সবচেয়ে বড় পার্থক্য ডিভাইসের পর্দায়। অন্য দু’টি ডিভাইসে যেখানে ওলেড পর্দা ব্যবহার করা হয়েছে সেখানে আইফোন Xআর-এর পর্দা এলসিডি।

অ্যাপলের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ডিভাইসটিতে সম্পূর্ণ নতুন প্রযুক্তির.৬.১ ইঞ্চি এলসিডি পর্দা ব্যবহার করা হয়েছে। নতুন এই পর্দার নাম বলা হয়েছে ‘লিকুইড রেটিনা’।

ডিভাইসটি উন্মোচনের সময় অ্যাপলের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ফিল শিলার দাবি করেন, “নতুন এই পর্দাটি সবচেয়ে উন্নত এলসিডি পর্দা।”

“আইফোনের নতুন উদ্ভাবনের সঙ্গে আইফোন Xআর আমাদেরকে আরও বেশি গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেবে। নতুন প্রযুক্তির সমন্বয়ে বানানো হয়েছে ডিভাইসটি, এজ-টু-এজ ৬.১ ইঞ্চি লিকুইড রেটিনা পর্দা, নতুন ট্রুডেপথ ক্যামেরার সঙ্গে দ্রুতগতির ফেইস আইডি, দ্বিতীয় প্রজন্মের নিউরাল নেটওয়ার্কের সঙ্গে নতুন সাত ন্যানোমিটার বায়োনিক চিপ এবং উন্নত পোর্টরেইট মোড ও পোর্টরেইট লাইটিং সমর্থন করে এমন ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।”

শিলার আরও বলেন, “নতুন অ্যারোস্পেস-গ্রেড অ্যালুমিনিয়ামের সঙ্গে কাঁচ ব্যবহার করা হয়েছে আইফোন Xআর-এ, যা আইপি৬৭ মানের পানি ও ধুলা নিরোধী। সারাদিনের জন্য দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি রয়েছে এতে।”

ছয়টি রঙে উন্মোচন করা হয়েছে আইফোন Xআর, সাদা, কালো, নীল, হলুদ, কোরাল এবং লাল (প্রোডাক্ট রেড)। নতুন এ১২ বায়োনিক চিপ ব্যবহার করায় ডিভাইসটির ব্যাটারি আইফোন ৮ প্লাসের চেয়ে দেড় ঘন্টা বেশি স্থায়ী হবে বলে দাবি করেছে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

আইফোন X-এর ফেইস আইডি আনা হয়েছে আইফোন Xআর-এ। তবে ডিভাইসটিতে আগের চেয়ে উন্নত ও দ্রুতগতির হয়েছে ফেইস আইডি। এর মাধ্যমে ডিভাইস আনলক, অ্যাপল পে এবং অন্যান্য সুরক্ষিত অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন গ্রাহক।

অন্যান্য আইফোন X-এর মতো পেছনে ডুয়াল ক্যামেরা রাখা হয়নি আইফোন Xআর-এ। এর বদলে নতুন একটি এফ/১.৮ অ্যাপারচার ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স ব্যবহার করা হয়েছে ডিভাইসটিতে। বড় এবং গভীর পিক্সেলের কারণে ভালো মানের ছবি পাওয়া যাবে এতে। আর কম আলোতেও ভালো ছবি ও ভিডিও ধারণ করবে ডিভাইসটি। উন্নত আইএসপি, নিউরাল ইঞ্জিন ও উন্নত সফটওয়্যার অ্যালগদিমের কারণে ছবিতে দারুণ বোকেহ ইফেক্ট দেবে এটি।

দ্রুতগতির ডাউনলোডের জন্য আইফোন Xআর-এ রয়েছে এলটিই অ্যাডভান্সড। ডিভাইসটিতে ডুয়াল সিম সমর্থনও এনেছে অ্যাপল। যুক্তরাষ্ট্র আর যুক্তরাজ্যে শুধু একটি সিম কার্ড ট্রে-ই থাকছে, তবে ব্যবহারকারীরা বাড়তি একটি ই-সিম কার্ডের মাধ্যমে এই সুবিধা পাবেন। আর চীনে এই আইফোনগুলো বিশেষভাবে দুই সিমের হোল্ডারযুক্ত করে আনা হবে।

আইফোন Xএস ও Xএস ম্যাক্সের মতোই আইওএস ১২ রয়েছে আইফোন Xআর-এ। এটিকে বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম দাবি করেছে অ্যাপল। এর মাধ্যমে অগমেন্টেড রিয়ালিটি, অ্যানোমোজি ও মেমোজি’র মতো ফিচারগুলো ব্যবহার করতে পারবেন গ্রাহক।

৬৪, ১২৮ ও ২৫৬ গিগাবাইট মডেলে বাজারে আসবে আইফোন Xআর। ডিভাইসটির বাজার মূল্য শুরু হবে ৭৪৯ মার্কিন ডলার থেকে।

১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ডিভাইসটি প্রি-অর্ডার করতে পারবেন গ্রাহক। ১৯ অক্টোবর নির্দিষ্ট কিছু বাজারে আনার পর ২৬ অক্টোবর ৫০টির বেশি দেশে আনা হবে আইফোন X-আর।

আরও খবর-

যা যা থাকছে অ্যাপলের নতুন আইফোনে

অ্যাপল আনলো দুই সিমের নতুন আইফোন

অ্যাপল আনলো ওয়াচ সিরিজ ৪
 





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort sakarya travesti webmaster forum