ad720-90

চাঁদের জন্য প্রথম যাত্রী পেল স্পেসএক্স


ভ্রমণের
জন্য ওই যাত্রীর কাছ থেকে কী পরিমাণ অর্থ নেওয়া হবে তা জানায়নি স্পেসএক্স, খবর ব্রিটিশ
ট্যাবলয়েড মিররের।

প্রতিষ্ঠানের
নতুন বিগ ফ্যালকন রকেট (বিএফআর)-এ একজন নভোচারী ও একজন যাত্রী পরিবহন করা হবে। যাত্রীদের
নিয়ে চাঁদের পথে ২৩৮৮৫৫ মাইল পাড়ি দেবে রকেটটি।

স্পেসএক্স-এর
নতুন বিএফআর রকেটটি ১৩৬ টন পর্যন্ত ভর বহন করতে পারবে। এতে রয়েছে ৩৭টি র‍্যাপ্টর ইঞ্জিন।

মাইক্রো
ব্লগিং সাইট টুইটারে নতুন বিএফআর-এর একটি ছবিও দিয়েছে স্পেসএক্স। পরবর্তীতে প্রতিষ্ঠান
প্রধান ইলন মাস্ক নিশ্চিত করেছেন যে রকেটটি যখন উৎক্ষেপণ করা হবে তখন এটি দেখতে আসলে
এমনটাই হবে।

নতুন
বিএফআর রকেটটি বানাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস-এ জমি ইজারা নিয়েছে স্পেসএক্স।
২০১৯ সালে এখান থেকেই রকেটটির পরীক্ষা শুরুর পরিকল্পনা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির।

শতভাগ
পুনব্যবহারযোগ্য করেই নকশা করা হয়েছে রকেটটি। ফলে মহাকাশ যাত্রার খরচ অনেকটাই কমে যাবে
বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

এই
রকেটের মাধ্যমে পৃথিবীর ভেতরেও যেকোনো প্রান্তে এক ঘন্টার মধ্যে যাতায়াত করা যাবে বলে
জানানো হয়েছে। সেক্ষেত্রে প্লেন ভাড়ার চেয়ে অনেক বেশি মূল্য দিতে হবে যাত্রীকে।

২০২২
সাল থেকে নতুন বিএফআর রকেটটিতে মঙ্গল গ্রহে কার্গো পরিবহনেরও পরিকল্পনা রয়েছে। মাস্কের
দাবি ২০২৪ সালে লাল গ্রহটিতে মানব মিশন পরিচালনা করা হবে।

অন্যদিকে
চাঁদে নভোচারী পাঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে নাসারও। কিন্তু ২০২২ সালের আগে এটি শুরু হবে
না বলেই জানানো হয়েছে।

স্পেসএক্স
জানায় এযাবৎ মাত্র ২৪ জন চাঁদে ভ্রমণ করেছেন। চাঁদে সর্বশেষ মিশনটি পরিচালনা করা হয়
১৯৭২ সালে। এবার স্পেসএক্স-এর এই মিশনটি নতুন সম্ভাবনার দ্বার খুলবে বলেই আশা করা হচ্ছে।





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort sakarya travesti webmaster forum