ad720-90

রোবটে বাড়বে কর্মসংস্থান: ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম


বিবিসি’র
প্রতিবেদনে ‘থিংক ট্যাংক’ আখ্যা পাওয়া এই সুইস অলাভজনক সংস্থার হিসাব মতে, ২০২২ সালের
মধ্যে রোবট বিশ্বব্যাপী সাড়ে সাত কোটি চাকরি সরিয়ে দেবে কিন্তু ১৩.৩০ কোটি নতুন কর্মসংস্থান
করবে। সব মিলিয়ে বিষয়টিকে ‘ইতিবাচক’ হিসেবেই দেখছে সংস্থাটি।

সংস্থাটির
পক্ষ থেকে বলা হয়, কম্পিউটিংয়ে উন্নতি কর্মীদের জন্য নতুন কাজের সুযোগ এনে দেবে। কিন্তু
অন্য অনেকেই সতর্ক করে বলেছেন হারানো চাকরিগুলোর বদলে নতুন চাকরি আসবে এমন কোনো নিশ্চয়তা
নেই- জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটি। 

ওয়ার্ল্ড
ইকোনমিক ফোরাম বা ডব্লিউইএফ বলেছে, রোবট আর অ্যালগরিদম বর্তমান কাজগুলোর উৎপাদনক্ষমতা
“অনেক বেশি উন্নত” করবে আর এর ফলে সামনের বছরগুলোতে নতুন অনেক কর্মসংস্থান হবে। এর
ফলে আরও বেশি ডেটা বিশ্লেষক, সফটওয়্যার নির্মাতা ও সামাজিক মাধ্যম বিশেষজ্ঞের সঙ্গে
গ্রাহক সেবাদাতা ও শিক্ষদের মতো ‘স্বতন্ত্র মানব বৈশিষ্ট্য’ভিত্তিক কাজ দেখা যাবে।    

সংস্থাটির
পূর্বাভাস মতে, রোবটগুলো সহজেই হিসাবরক্ষক সংস্থা, কারখানা, পোস্ট অফিস, সাচিবিক কাজ
আর ক্যাশিয়ারদের কাজ নিয়ে নিতে পারে। এই ‘উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের’ কারণে কর্মীদেরকে
তাদের দক্ষতা বাড়ানো উচিৎ বলে মত দিয়েছে ডব্লিউইএফ। যেসব কর্মীর চাকরি হারানো যাবে
তাদের জন্য নিরাপত্তা জাল তৈরিতে সরকারগুলোকে আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

চলতি
বছর অগাস্টে ব্যাংক অফ ইংল্যান্ড-এর প্রধান অর্থনীতিবিদ অ্যান্ডি হ্যালডেইন সতর্ক করে
বলেন, রোবট হাজার হাজার ব্রিটিশের চাকরি নিয়ে নিতে পারে। তিনি বলেন, “(চতুর্থ শিল্প
বিপ্লব)-এ চাকরি হারানোর মাত্রা অন্তত প্রথম তিনটি শিল্প বিপ্লবের চেয়ে কম না-ও হতে
পারে।”





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort sakarya travesti webmaster forum