ad720-90

আইটি ইনকিউবেটরে এক বছর সহায়তা পাবে ৬ ডিজিটাল উদ্যোগ


আইটি ইনকিউবেটর ২.০-এর বিজয়ী ঘোষণা করেছে বাংলালিংক ও হাই টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। ছবি: সংগৃহীত।বাংলাদেশের সম্ভাবনাময় ডিজিটাল উদ্যোক্তাদের এগিয়ে নিতে মোবাইল অপারেটর বাংলালিংক ও বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক অথোরিটির যৌথ উদ্যোগ ‘আইটি ইনকিউবেটর ২.০’-এর জন্য ৬ ডিজিটাল উদ্যোগ নির্বাচন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর লা মেরিডিয়ান হোটেলে আনুষ্ঠানিকভাবে ওই ৬ উদ্যোগের নাম ঘোষণা করা হয়।

নির্বাচিত ৬টি ডিজিটাল স্টার্টআপ হলো জিনি আইওটি, ছবির বাক্স, হোমফুডস. কো, পার্কলি, টিচ ইট এবং ইজি সেন্স। এর মধ্যে জিনি আইওটি এআই-ভিত্তিক স্মার্ট অ্যাপলায়েন্সেস সেবা, ছবির বাক্স হচ্ছে ফটোগ্রাফি মার্কেটপ্লেস, হোমফুডস. কো হচ্ছে অনলাইন ফুড ডেলিভারি, পার্কলি হচ্ছে কার পার্কিং সলিউশন, টিচ ইট হচ্ছে ই-লার্নিং এবং ইজি সেন্স হচ্ছে ইন্ডাস্ট্রিয়াল আইওটির বিশেষ উদ্যোগ।

নির্বাচিত এই ডিজিটাল উদ্যোগগুলো এক বছরের জন্য কারওয়ান বাজারে অবস্থিত জনতা টাওয়ারের আইটি ইনকিউবেটরে অবকাঠামো, উপকরণ ও প্রশিক্ষণ সুবিধা পাবে।

গ্র্যান্ড গালা বিশেষ অনুষ্ঠানে জানানো হয়, আইটি ইনকিউবেটরে অংশগ্রহণকারী সেরা ছয় ডিজিটাল স্টার্টআপ বা উদ্যোগগুলো দেশের সেরা তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত আইটি ইনকিউবেটরের বাছাই পর্বের মাধ্যমে নির্বাচন করা হয়েছে।

ডিজিটাল উদ্যোগের অভিনবত্ব ও ব্যবসায়িক সম্ভাবনার ভিত্তিতে অংশগ্রহণকারী দুই শতাধিক ডিজিটাল স্টার্টআপ থেকে বেছে নেওয়া হয়েছে সেরা ছয়টিকে—যেগুলো এক বছরের জন্য কারওয়ান বাজারে অবস্থিত জনতা টাওয়ারের আইটি ইনকিউবেটরে অবকাঠামো, উপকরণ ও প্রশিক্ষণ পাবে।

আইটি ইনকিউবেটর বাংলালিংকের স্বত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান ভিওনের ফ্ল্যাগশিপ করপোরেট রেসপনসিবিলিটি প্রোগ্রাম ‘মেক ইওর মার্কের’ অন্তর্ভুক্ত। বিশ্বের যেসব স্থান ভিওনের কার্যক্রমের আওতাধীন, সেখানে আইটি খাতের উন্নয়নে এটি কাজ করে।

বাংলালিংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এরিক অস বলেন, ‘বাংলালিংক এই বিশেষ উদ্যোগের অংশ হতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত। আইটি ইনকিউবেটর সম্ভাবনাময় ডিজিটাল স্টার্টআপগুলোর জন্য প্রয়োজনীয় একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। দেশের অন্যতম প্রধান ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমরা প্রতিভাবান ডিজিটাল উদ্যোক্তাদের পাশে দাঁড়িয়ে তাঁদের উদ্ভাবনী পরিকল্পনাকে সফল উদ্যোগে পরিণত করার ক্ষেত্রে সাহায্য করতে চাই। ভবিষ্যতে সরকারের সঙ্গে আমাদের অংশীদারত্ব দৃঢ়তর করে আমরা তাদের উন্নয়নের জন্য আরও উদ্যোগ গ্রহণ করতে চাই।’

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক অথোরিটির পরিচালক হোসনে আরা বেগম বলেন, ডিজিটাল স্টার্টআপগুলোকে প্রয়োজনীয় সাহায্য করা হবে।

২০১৬ সালের জুলাই মাসে প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় ও ইন্টারন্যাশনাল টেলি কমিউনিকেশনস ইউনিয়নের সেক্রেটারি জেনারেল হওলিন ঝাও আইটি ইনকিউবেটর উদ্বোধন করেন।





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort sakarya travesti webmaster forum