ad720-90

কেনিয়ায় বেলুন ইন্টারনেট আনছে অ্যালফাবেট


বৃহস্পতিবার প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়, ২০১৯ সাল থেকে দেশটির পল্লী ও উপশহরের মানুষদের কাছে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিতে টেলিকম কেনিয়ার সঙ্গে বেলুন ইন্টারনেট সেবা চালু করা হবে। এর মাধ্যমে আফ্রিকান অঞ্চলে প্রথম বাণিজ্যিক চুক্তি করেছে লুন– খবর রয়টার্সের।

অ্যালফাবেটের উদ্ভাবনী ল্যাব ‘অ্যালফাবেট এক্স’-এর তৈরি এই প্রযুক্তি ‘প্রজেক্ট লুন’ নামে পরিচিত। পরবর্তীতে ‘লুন’ নামে অ্যালফাবেটের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে যাত্রা শুরু করে এটি।

২০১৭ সালে পুয়ের্তো রিকোতে হ্যারিকেন দূর্যোগের পর এই অঞ্চলের আড়াই লাখ বাসিন্দাকে ইন্টারনেট সেবা দিতে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করেছে মার্কিন টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান। এবার এই প্রকল্প কেনিয়ার শতভাগ বাসিন্দাকে ইন্টারনেট সেবার আওতায় আনবে বলে আশা করছে দেশটি।

লুন-এর প্রধান নির্বাহী অ্যালাস্টায়ার ওয়েস্টগার্থ বলেন, “লুন-এর লক্ষ্য হলো উদ্ভাবনী এবং সাহসী প্রযুক্তির মাধ্যমে সব অঞ্চলের মানুষদের সংযুক্ত করা।”

সাফারিকম এবং ভারতি এয়ারটেল-এর পর কেনিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান টেলিকম কেনিয়া।

টেলিকম প্রধান নির্বাহী অ্যালডো ম্যারইউজ বলেন, “আফ্রিকায় লুন-এর বেলুন ইন্টারনেট ব্যবহার করে যত দ্রুত সম্ভব প্রথম বাণিজ্যিক মোবাইল সেবা দিতে আমরা লুন-এর সঙ্গে কঠোর পরিশ্রম করবো।”

প্রতিষ্ঠান দু’টির মধ্যে চুক্তির কোনো শর্ত প্রকাশ করা হয়নি।

কম ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় ৪জি নেটওয়ার্ক সেবা দিতে বেলুন ব্যবহার করে লুন। সৌর প্যানেলের মাধ্যমে শক্তি পায় এটি।

লুন জানায়, সমুদ্রপৃষ্ঠের ৬০ হাজার ফুট ওপরে ভাসতে থাকে বেলুনগুলো, যা এয়ার ট্রাফিক এবং আবহাওয়া কার্যক্রমের অনেক ওপরে।





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort sakarya travesti webmaster forum