ad720-90

গুগলকে জরিমানা, চটেছেন ট্রাম্প


ট্রাম্পের মতে এই জরিমানা একাধিক বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের উপর ইউরোপের শোষণের সর্বশেষ প্রমাণ। ইইউ যদি তাদের বাণিজ্য নীতিমালা না বদলায় তবে এই অঞ্চলকে বিশেষত ইউরোপে তৈরি করা গাড়ি খাতকে “ভয়ানক প্রতিফল” পেতে হবে বলে সম্প্রতি হুমকি দেন ট্রাম্প। তার এই হুমকির একদিন পরই  ইইউ গুগলকে ওই জরিমানা করে।

বুধবার ইইউ-এর পক্ষ থেকে বলা হয়, গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অনৈতিকভাবে তাদের নিজস্ব সেবাকে বাড়তি সুবিধা দিয়েছে। স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ক্রোম, সার্চ এবং প্লে স্টোরের মতো গুগল অ্যাপগুলোকে আগে থেকে ইনস্টল করতে বাধ্য করেছে।

ইইউ’র এই জরিমানা পুরোপুরি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সাংঘর্ষিক বলে উল্লেখ করা হয়েছে আইএএনএস-এর প্রতিবেদনে। যুক্তরাষ্ট্রেও গুগলের সার্চ আর বিজ্ঞাপন ব্যবসায় নিয়ে অ্যান্টি-ট্রাস্ট কর্তৃপক্ষ তদন্ত করেছিল। ওয়েব জায়ান্টটিকে বড় কোনো শাস্তি দেওয়া ছাড়াই ২০১৩ সালে ওই তদন্ত শেষ হয়।     

এরপর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ফেডারেল ট্রেড কমিশন বা এফসিসি নতুন তদন্ত শুরু করবে কিনা তা নিয়ে একই আলোচনা তোলেন ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকানরা।

বুধবার এক বিবৃতিতে ডেমোক্রেট দলের সিনেটর রিচার্ড ব্লুমেনথাল বলেন, “এফটিসি’র অবশ্যই এক দশক করে কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ার অবস্থান শেষ করতে হবে আর বাজারে জোর প্রতিযোগিতা রোধ করতে গুগলের চর্চার ক্রমবর্ধমান প্রমাণ সামনে আনতে হবে যা আমাদের অর্থনীতি ও সমাজের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।”

“একা ইউরোপেরই এই এজেন্ডা তৈরি করা উচিৎ নয়।”

এ নিয়ে মন্তব্যের জন্য অনুরোধ করা হলেও হোয়াইট হাউসের এক মুখপাত্র তাৎক্ষণিকভাবে কোনো সাড়া দেননি বলে উল্লেখ করা হয়েছে প্রতিবেদনে।

আরও খবর-

গুগলকে ৫ বিলিয়ন ডলার জরিমানা
 





সর্বপ্রথম প্রকাশিত

Sharing is caring!

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar



adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort adapazarı escort sakarya travesti webmaster forum